Breaking News
Home / পাবনা সদর / সর্বহারা পার্টির নামে চাঁদা দাবি, হামলা, গুলিবর্ষণ, হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করে লিফলেট

সর্বহারা পার্টির নামে চাঁদা দাবি, হামলা, গুলিবর্ষণ, হত্যাকান্ডের দায় স্বীকার করে লিফলেট

পিপ : এক সময়ে সন্ত্রাস কবলিত পাবনায় আবারও সংগঠিত হচ্ছে চরমপন্থিরা। পাবনা সদর উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের পূর্ববাংলা সর্বহারা পার্টির নামে চাঁদা দাবি, ঠিকাদারী সাইটে হামলা ও গুলির্বষণের অভিযোগ উঠেছে। এ সময় হামলাকারীরা পূর্ববাংলা সর্বহারা পার্টির নামে শ্লোগান ও সরকার উৎখাতের আহবান জানিয়ে লিফলেটও ফেলে রেখে যায়। রোববার রাতের এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ঠিকাদার গতকাল সোমবার বিকেলে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে গুলির খোসা ও আলামত সংগ্রহ করেছে।
ভুক্তভোগী ঠিকাদার শেখ রাসেল আলী মাসুদ ওরফে ভিপি মাসুদ জানান, সাদুল্লাহপুর ইউনিয়নের তেলিগ্রাম ঢালীপাড়া এলাকায় প্রায় ৮০ লক্ষ টাকা ব্যায়ে বিএডিসির সড়ক উন্নয়ন কাজ করছে তার প্রতিষ্ঠান । গত এক মাস ধরে সর্বহারা পার্টির নামে অপরিচিত ফোন কলে কাজের বরাদ্দ থেকে ২০ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করছিলো অজ্ঞাতরা। বিষয়টি গুরুত্ব না দেয়ায় রোববার সন্ধ্যার পরে ঢালীপাড়া সাইটে সাত আটজনের একটি সন্ত্রাসী দল সশস্ত্র হামলা চালিয়ে গুলিবর্ষণ শুরু করে। তারা সাইটে থাকা এস্কেভেটরে (ভেকু গাড়ি) গুলি চালিয়ে কাঁচ ভেঙে দেয়। এ সময় সাইটে থাকা শ্রমিকরা ভয়ে দিগি¦দিক ছুটে পালিয়ে যায়। সন্ত্রাসীরা চাঁদা না দিলে এ এলাকায় কাজ করতে দেয়া হবেনা বলে জানিয়ে, সরকার উৎখাতের হুমকি দেয় এবং সর্বহারা পার্টির নামে শ্লোগান দিতে দিতে চলে যায়।
প্রত্যক্ষদর্শী সাইট ম্যানেজার মামুন হোসেন জানান, রোববার মাগরিবের নামাজের পরে ছয় সাতজন অপরিচিত যুবক এসে ঢালীপাড়ায় রাস্তার কাজ বন্ধ করতে বলেন। আমরা বিষয়টি গুরুত্ব না দেয়ায় তারা অস্ত্র উঁচিয়ে গুলি করতে শুরু করে। মাটিকাটার কাজে ব্যবহৃত ভেকু গাড়িতে কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে কাঁচ ভেঙে, গাড়ি অকেজো করে দেয়। তাদের সাথে কথা না বলে কাজ চালানোর চেষ্টা হলে ভয়াবহ পরিণতি হবে বলেও হুমকি দেয়।
প্রত্যক্ষদর্শী শ্রমিক ও এলাকাবাসি আরো জানান, সন্ত্রাসীরা ঘটনাস্থলে বেশকিছু লিফলেটও দিয়ে গেছে। লিফলেটে সম্প্রতি পাবনা-রাজবাড়ী সীমান্তবর্তী ঢালারচরের রাখালগাছিতে দৃর্বর্ত্তের হামলায় নিহত আওয়ামীলীগ নেতা আক্কাস আলী হত্যার দায়ও স্বীকার করেছে তারা। এ ঘটনাকে উদাহরণ দিয়ে সর্বহারা দমনে পুলিশের সোর্স হিসেবে কাজ করলে এমন পরিণতি হবে বলেও হুমকি দিয়েছে তারা। ঘটনার পর ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের শ্রমিক ও এলাকাবাসীর মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে।
এদিকে, ঘটনার পর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে বেশকিছু গুলির খোসা ও আলামত সংগ্রহ করেছে। এলাকায় পুলিশী নিরপত্তা বাড়ানো হয়েছে।
পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম জানান, ঠিকাদারের কাছে খবর পেয়ে গতরাতেই পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আলামত সংগ্রহ করেছে। সর্বহারা পার্টির নামে এ ধরনের লিফলেট বেশ কিছুদিন ধরেই ছড়ানো হচ্ছে। আইনশৃংখলা বাহিনী চরমপন্থি সন্ত্রাসীদের নেটওয়ার্ক ভেঙে দিয়েছে। বিচ্ছিন্ন ভাবে এরা আবার সংগঠিত হবার চেষ্টা করছে। পুলিশ গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে মাঠে কাজ করছে। বিশৃংখলাকারীদের বিরুদ্ধে পুলিশ কঠোর অবস্থানে রয়েছে।
মাসুদ আলম আরো জানান, ঠিকাদারী সাইটে হামলার ঘটনায় ঠিকাদার আতাইকুলা থানায় অভিযোগ দিয়েছেন। পুলিশের একাধিক দল বিষয়টি নিয়ে কাজ করছে। সন্ত্রাসীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনা হবে।
প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ৯ এপ্রিল পাবনার শহীদ আমিনউদ্দিন স্টেডিয়ামে স¦াভাবিক জীবনে ফিরে আসার প্রতিশ্রুতিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের নিকট আত্মসমর্পণ করে এ অঞ্চলের প্রায় ছয়শ চরমপন্থি। এর আগে ১৯৯৯ সালেও সর্বহারা কমিউনিস্ট পার্টির সদস্যরা সরকারের নিকট আত্মসমর্পণ করে। রোববার প্রচারিত লিফলেটে এসব আত্মসমর্পণকে সাজানো নাটক অভিহিত করে, আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে সহায়তাকারী সাবেক চরমপন্থি সদস্যদেরও প্রতিহত করার হুমকি দেয়া হয়েছে।
২০০৮ সালের পর থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কঠোর অবস্থানে পাবনা রাজবাড়ী এলাকায় চরমপন্থি তৎপরতা কমে আসলেও, সম্প্রতি কয়েকটি হত্যাকান্ডের ঘটনায় আবারো নতুন করে উপস্থিতি জানান দিচ্ছে নিষিদ্ধ ঘোষিত চরমপন্থি সংগঠন পূর্ববাংলা সর্বহারা পার্টি।
উল্লেখ্য, ভুক্তভোগী ঠিকাদার শেখ রাসেল আলী মাসুদ ওরফে ভিপি মাসুদ পাবনা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও পাবনা সদর আসনের সংসদ সদস্য গোলাম ফারুক প্রিন্স এর ব্যাক্তিগত সহকারী।

Check Also

সরকার শিক্ষা ব্যবস্থা উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে – এমপি প্রিন্স

মিজানুর রহমান: পাবনা সদর উপজেলার চর ঘোষপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নবনির্মিত ভবনের উদ্বোধন করা হয়েছে। …

জনগনের স্বাস্থ্য নিয়ে কাউকে ছিনিমিনি খেলতে দেওয়া হবেনা-গোলাম ফারুক প্রিন্স এমপি

পিপ : পাবনা সদর আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য ও পাবনা জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *