Wednesday , July 6 2022
Breaking News
Home / পাবনা সদর / পাবনায় শিপন খাঁন হত্যার প্রতিবাদ এলাকাবাসীর বিক্ষোভ; মহাসড়ক অবরোধ

পাবনায় শিপন খাঁন হত্যার প্রতিবাদ এলাকাবাসীর বিক্ষোভ; মহাসড়ক অবরোধ

পাবনার বেড়া উপজেলার আমিনপুর থানাধীন ঘোপসিলেন্দা এলাকার মাটি কাটার ভেকু চালক শিপন খাঁন হত্যার প্রতিবাদ ও খুনিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে বিক্ষোভ করেছে পরিবারের সদস্য ও এলাকাবাসী। ২৩ মে (সোমবার) দুপুরে আমিনপুর থানাধীন বাঁধেরহাট এলাকায় মহাসড়কের উপরে এই প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করে। এসময় বিক্ষোভকারীরা শিপন হত্যার সাথে জড়িত খুনিদের দ্রুত গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি জানান। ঘন্টাব্যাপী চলা এই বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচিতে পরিবারের সদস্য সহ এলাকার শতাধিক নারী পুরুষ অংশগ্রহণ করেন। এসময় বিক্ষোভকারীরা কাজিরহাট-কাশিনাপুর মহাসড়র অবরোধ করলে স্থানীয় পুলিশ প্রশাসন তাদের বুঝিয়ে সড়ক থেকে সরিয়ে দেন।
গত ১৫ মে ভাবিকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করার জের ধরে শিপন খাঁন (৩০) নামের এই যুবককে ধারালো অস্ত্রদিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা। আমিনপুর থানা এলাকার ঘোপসিলেন্দা গ্রামের মৃত আজিজ খাঁর ছেলে। সে দীর্ঘদিন বিদেশ থাকার পরে সম্প্রতি করেনাকালীন সময়ে দেশে এসে সিলিটে মাটিকাটার মেশিনের কাজ করতো। ঈদে বাড়িতে এসে ভাবিকে উত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় তাকে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা।
ঘটনার পরে নিহত শিপনের বড় ভাই আলী আকবর খান নিজে বাদী হয়ে আমিনপুর থানাতে খুনিদের নাম উল্লেখ করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। কিন্তু ঘটনার ১০ দিন অতিবাহিত হলেও এখনো খুনিদের সকলকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। তাই চিহ্নিত খুনিদের গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় নিয়ে এসে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি করেছেন ভুক্তভোগীরা।
নিহতের বড় ভাই মামলার বাদী আলী আকবর খান বলেন, এই হত্যা কান্ডের পরে সন্ত্রাসীরা আমাদের মামলা তুলেনিতে হুমকি প্রদান করছে। আমরা নিরাপত্তাহিনতার মধ্যে আছি। পুলিশ আসলে সকলে পালিয়ে যায়। পুলিশ চলেগেলে রাতে তারা এলাকায় অবস্থান করে। এই মামলার প্রধান আসামী স¤্রাটকে গ্রেপ্তার করলেও তার ভাই সৌরভ সহ এই হত্যা কান্ডের সাথে যারা সরাসরি জড়িত ছিলো তারা আত্মগোপন করেছে। এই মামলার অন্যান্য আসামীরা বিজয় মিয়া, বকুল মিয়া, ফজলুর রহমান, আমিরুল মিয়া, হাচ্চু মিয়াু, সকলেই এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তাদের ভয়ে সাধারন মানুষ কথা বলতে সাহস করেনা। আমরা আমার ভাইয়ের হত্যাকারীদের দৃষ্টান্ত মূলত শাস্তির দাবি করছি। পুলিশ প্রশাসনসহ প্রধানমন্ত্রীর হস্তোক্ষেপ কামনা করেন নিহতের পরিবারের সদস্যরা।
ঘটনার বিষয়ে পাবনা আমিনপুর থানার ভারপাপ্ত কর্মকর্তা ওসি রওশন আলী বলেন, পূর্ব শত্রুতার জেরধরে এই হত্যাকান্ড সংগঠিত হয়েছে। নিহত পরিবারের অভিযোগ শিপন খানের ভায়ের বউকে উত্যক্ত করতো এলাকার কিছু যুবক। সেই বিষয়ে শিপন নাকী প্রতিবাদ করেছিলো। তবে হত্যাকান্ডের প্রধান আসামী মোঃ ফজলুর রহমান মিয়ার ছেলে মোঃ সম্্রাট মিয়াকে আমরা ইতমধ্যে গ্রেপ্তার করেছি। মামলার বাকী আসামীরা আত্মগোপনে আছে । তাদের গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। আশা করছি খুব দ্রুত সময়ের মধ্যে তাদের সকলকে আইনের আওতায় নিয়ে আসবো আমরা।

About admin

Check Also

এনটিভি দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় চ্যানেল-সাহাবুদ্দিন চুপ্পু

পিপ : বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও কেন্দ্রিয় আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির চেয়ারম্যান …

Leave a Reply

Your email address will not be published.