Breaking News
Home / পাবনা সদর / পাবনায় আইন শৃংখলার চরম অবনতি কয়েকদিনে ১৩ লক্ষ টাকা ছিনতাই : ১৫ লক্ষ টাকা ছিনতাইকালে বাধা দেওয়ায় ব্যবসায়ীকে গুলিবিদ্ধ

পাবনায় আইন শৃংখলার চরম অবনতি কয়েকদিনে ১৩ লক্ষ টাকা ছিনতাই : ১৫ লক্ষ টাকা ছিনতাইকালে বাধা দেওয়ায় ব্যবসায়ীকে গুলিবিদ্ধ

পিপ : পাবনায় ব্যাপকভাবে চুরি ও ছিনতাইয়ের ঘটনা বাড়ছে। গত কয়েকদিনে ১৩ লক্ষ টাকা ছিনতাই হয়েছে। এ ছাড়া ১৫ লক্ষ টাকা ছিনতাইকালে বাধা দেওয়া শামস ইকবাল (৪০) নামের এক ব্যবসায়ীকে কে গুলি করা হয়েছে। সংশ্লিষ্ট সুত্রে জানা গেছে, প্রকাশ্য দিবালোকে পরিবহন ও চাউল ব্যবসায়ীর তিন লাখ টাকা ছিনতাইয়ের ১১ দিনেও হারানো টাকার কোন হদিস মেলেনি। গ্রেফতার হয়নি ছিনতাইকারীরা। এ নিয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী মনিরুল ইসলাম।
মনিরুল ইসলাম জানান, গত ২২ সেপ্টেম্বর দুপুর সাড়ে ১২ টায় জনতা ব্যাঙ্ক কর্পোরেট শাখা হতে নগদ তিন লাখ টাকা এবং এক লক্ষ টাকার চেক একটি কালো চামড়ার ব্যাগে নিয়ে রিক্সায় অনন্ত বাজার এলাকার বাড়িতে ফিরছিলেন। পথিমধ্যে শিবরামপুর কাঁলাচাদপাড়া এলাকায় তিনজন ছিনতাইকারী একটি কালো মোটর সাইকেলে এসে রিকশার গতি রোধ করে। এ সময় তারা পিস্তল ও ধারালো অস্ত্র ধরে ভয় দেখিয়ে টাকার ব্যাগ জোর পূর্বক ছিনতাই করে নিয়ে যায়। দিনের আলোয় তারা প্রকাশ্যে ছিনতাই করে নির্বিঘ্নে পালিয়ে যায়। সন্ত্রাসীরা একজন মাস্ক পরিহিত ও দুজন মুখ খোলা অবস্থায় ছিলো। আশেপাশের বাড়ির সিসি ক্যামেরায়ও ঘটনার ফুটেজ রয়েছে।
এদিকে, ঘটনার ১১ দিনেও ছিনতাই হওয়া টাকা উদ্ধার হয়নি। ছিনতাইকারীদের সনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ।
পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম বলেন, ছিনতাইয়ের ঘটনায় অভিযোগ পাওয়ার পর থেকেই বিষয়টি নিয়ে সদর ফাঁড়ির পুলিশ সদস্যরা কাজ করছেন। সিসি ফুটেজ যাচাই করে অপরাধীদের গ্রেফতারে কাজ করছে পুলিশ। আশা করছি দ্রুতই অপরাধীরা ধরা পড়বে। পাবনায় সাম্প্রতিক সময়ে বেড়েছে ছিনতাইয়ের ঘটনা। গত বৃহস্পতিবার পাবনার হাজিরহাট এলাকা থেকে কাপড় ব্যবসায়ী কামরুল ইসলাম খোকনকে মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে ১০ লাখ টাকা ছিনতাই করে সাভারে মহাসড়কে ফেলে রেখে যায় সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায়ও খোয়া যাওয়া টাকা উদ্ধার এবং আসামিরা গ্রেফতার হয়নি।
এদিকে শনিবার বিকেলে পাবনায় ব্যবসায়ীকে গুলি করে ১৫ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের চেষ্টা করেছে দূর্বৃত্তরা। শামস ইকবাল (৪০) নামের ঐ ব্যবসায়ীর সাহসিকতায় ছিনতাইকারীরা ব্যর্থ হলেও গুলিবিদ্ধ হয়েছেন তিনি। আহত শামস ইকবালকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
শনিবার (১ অক্টোবর) রাত আটটার দিকে সদর উপজেলার রাজাপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ব্যবসায়ী শামস গ্রামীন ফোনের আঞ্চলিক ডিলার। তিনি মালঞ্চি গ্রামের এস এম সারওয়ার হোসেনের ছেলে।
আহত ব্যবসায়ী শামস ইকবাল জানান, শনিবার রাতে তিনি আতাইকুলা এলাকা থেকে ব্যবসায়ীক লেনদেনের ১৫ লক্ষ টাকা নিয়ে মোটর সাইকেলে পাবনায় ফিরছিলেন। হঠাৎ রাজাপুর এলাকায় একটি এলপিজি গ্যাস স্টেশনের সামনে পেছন থেকে আসা মোটরসাইকেল আরোহীরা তার টাকার ব্যাগ ছিনিয়ে নিতে চেষ্টা করে।
তিনি দ্রুত সামনে এগিয়ে গেলে দূর্বত্তরা পর পর কয়েক রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে। এর একটি গুলি তার বাম হাতে বিদ্ধ হয়। গুলিবিদ্ধ অবস্থায় শামস না থেমে সামনে এগিয়ে গেলে পিছু ছাড়ে ছিনতাইকারীরা। পরে, স্থানীয়রা ব্যবসায়ী শামসকে উদ্ধার করে শামসকে পাবনা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে।
এ বিষয়ে পাবনা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমিনুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। শামস ইকবালকে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে। তিনি আশংকামুক্ত। ছিনতাই চেষ্টার ঘটনা তদন্তে পুলিশের একাধিক টিম মাঠে নেমেছে। সন্ত্রাসীদের আইনের আওতায় আনা হবে।

Check Also

জনগনের কল্যাণে রাজনীতি করে যেতে হবে -ডেপুটি স্পীকার

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সব সময় উন্নয়নে বিশ্বাস করে। আওয়ামী লীগের রাজনীতি করতে হলে জনগনের চাহিদা …

১০ ডিসেম্বর নিয়ে বিএনপি মানুষের মধ্যে গুজব ছড়াচ্ছে-সাহাবুদ্দিন চুপ্পু

পিপ : আওয়ামীলীগের কেন্দ্রিয় উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য ও সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির প্রচার ও প্রকাশনা কমিটির চেয়ারম্যান …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *