Wednesday , July 6 2022
Breaking News
Home / চাটমোহর / চলনবিলে বোরো ধানের ভালো ফলন হলেও কৃষকেরা দুশ্চিন্তায়

চলনবিলে বোরো ধানের ভালো ফলন হলেও কৃষকেরা দুশ্চিন্তায়

হেলালুর রহমান জুয়েল
চাটমোহরসহ চলনবিল জুড়ে শুরু হয়েছে বোরো ধান কাটার উৎসব। ফলনও ভালো হয়েছে। তবে দুশ্চিস্তায় আছেন কৃষক। কয়েক দফা ঝড়-বৃষ্টিতে ক্ষতি হয়েছে ধানের। সেই সাথে অতিরিক্ত মজুরী দিয়েও মিলছেনা কৃষিশ্রমিক। ধান কাটা নিয়ে অনিশ্চয়তার মধ্যে পড়েছেন চলনবিল অঞ্চলের কুষকেরা। অনেক জমিতে পানি জমে গেছে। বৈরী আবহাওয়ার কারণে জমিতে নুয়ে পড়েছে ধানের গাছ। এতে ফলন বিপর্যয় হতে পারে বলে আশংকা চাষিদের। চলনবিলের বিভিন্ন এলাকা ঘুরে বোরো চাষীদের সাথে কথা বলে এমন তথ্য জানা গেছে।
চাটমোহর উপজেলায় চলতি মৌসুমে ৯ হাজার ৬১০ হেক্টর জমিতে বোরো ধানের আবাদ হয়েছে। পুরোদমে চলছে ধান কাটা ও মাড়াইয়ের কাজ। ধান কাটতে শ্রমিক প্রতি গুনতে হচ্ছে ৭০০ থেকে ৮০০ টাকা। বর্তমানে বাজারে ১ মণ ধানের দাম ১০০০ টাকা।
চাটমোহর উপজেলার ছাইকোলার কৃষক ছিদ্দিকুর রহমান বললেন,অনেক ক্ষেত্রে ১০০০ টাকা দিয়ে শ্রমিক পাওয়া যাচ্ছেনা। তাছাড়া বৃষ্টির জন্য ধানের গাছ নুয়ে পড়েছে। পানিতে ডুবে গেছে ধান। এতে ধান নষ্ট হবে। ফৈলজানার কৃষক রোস্তম আলী জানালেন,আবাদে খরচ হয়েছে বেশি। সে তুলনায় ফলন কম। তাছাড়া সেচযন্ত্র মালিকরা সিকি ভাগ ধান নিতে মরিয়া হয়ে উঠেছে। এনিয়ে বিরোধ চলছে কৃষকের সাথে। পাশর্^ডাঙ্গার কৃষক শামীম হোসেন বলেন,বীজ,সার,সেচ ও পরিচর্যা বাবদ বিঘাপ্রতি খরচ ১০/১২ হাজার টাকা। এখন শ্রমিক খরচ পড়ছে বিঘাপ্রতি ৫ হাজার টাকা। ফলে কৃষক ক্ষতিতে পড়বে।
চাটমোহর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা এ এ মাসুমবিল্লাহ বললেন,বৃষ্টির কারণে তেমন ক্ষতি না হলেও জমিতে পানি জমেছে,ধান নুয়ে পড়েছে। এতে ধানের গুণগত মান কমে যাবে। আমরা কৃষকদের দ্রুত ধান কাটার পরামর্শ দিচ্ছি। শ্রমিক সংকটের কথা শুনেছি। বৈরী আবহাওয়ার কারণে দ্রুত ধান কেটে তুলতে হবে। কৃষি অফিস কৃষকদের নানাভাবে পরামর্শ দি”েচ্ছ বলে জানান এই কর্মকর্তা।

About admin

Check Also

চাটমোহরে পৌরসভার বাজেট ঘোষণা

চাটমোহর প্রতিনিধি পাবনার চাটমোহর পৌরসভার ২০২২-২০২৩ বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.