Wednesday , August 17 2022
Breaking News
Home / সুজানগর / আমিনপুরে নিশংস খুনের রহশ্য উদঘাটনে প্রেস ব্রিফিং এ সহকারী পুলিশ সুপার,সুজানগর সার্কেল

আমিনপুরে নিশংস খুনের রহশ্য উদঘাটনে প্রেস ব্রিফিং এ সহকারী পুলিশ সুপার,সুজানগর সার্কেল

আবু হানিফ খানঃ আমিনপুর থানায় স্বামী কর্তৃক গৃহবধূর মর্মান্তিক খুনের ঘটনা ঘটেছে।
০৫ জুলাই বুধবার পাবনা জেলার আমিনপুর থানার রূপপুর ইউনিয়ন এর পাইকান্দা গ্রাম এলাকার লোকমারফত সংবাদের মাধ্যমে খবর পেয়ে পাবনা পুলিশ সুপার মহিবুল ইসলাম খান ( অতিরক্ত ডি আাই জির) নির্দেশে, সহকারী পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম নেতৃত্বে আমিনপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোঃ রওশন আলী সংগীও ফ্রোস টিম নিয়ে ঘটনা স্থলে যান। ঘটনাস্থল পরিদর্শন পূর্বক নিহতের প্রকৃর মোটিভ জানতে পারেন। ভিকটিম সাবিনা খাতুন (৩২) এর ভাই সকাল থেকে বোনের কোনো খোঁজ না পাওয়ায় এলাকাবাসীর সাথে খোজাখুজির পর খুণী স্বামীর ঘরের পাশের ডোবায় মাথার চুল ভাসা দেখতে পেয়ে গিয়ে বোনের লাশের সন্ধান পেয়ে থানায় খবর দিলে পুলিশ লাশ উদ্ধার করতে সক্ষম হয়।
পুলিশ জানিয়েছেন,স্ত্রী খুনি স্বামীকে হেপাযোতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে প্রথমে বলে যে,সে কিছুই জানেনা এলোমেলো ও অসংলগ্ন উত্তর দেওয়ায় সন্দেহ হলে তাকে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করলে এই খুনের শিকার করে বলে, পারিবারিক কলহের কারণে গত প্রায় (২) দুই মাস পূর্বেই হত্যার পরিকল্পনা করেছিলাম। খুনের আগের দিন একটি গরু বিক্রয় করা টাকা কি করেছি স্ত্রী জানতে চাইলে স্বামী ক্ষিপ্ত হলেও বুঝতে না দিয়ে মিষ্টি মুখের কথায় স্ত্রী এনার্জি ড্রিংক খাইতে পছন্দ করতো পাশের দোকান থেকে ঘুমের বরি মিশিয়ে এনে খেতে দিলে খেয়ে স্ত্রী ঘুমিয়েগেলে গরুর দরি দিয়ে হাত-পা বেঁধে গলায় গামছা দিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে মেরে ঘরের পাশের যমুনা নদীর তীরে ডোবায় ফেলে দিলে লাশ না ডুবে যাওয়ার কারনে ঘর থেকে চাকু এনে পেট কেটে বুঁরি বের করে দেয় বলে খুনী স্বামী প্রশ্ন উত্তরে জানায়। উল্লেখ্য যে,সাবিনাকে কোথাও খুঁজে না পাওয়ায় এলাকাবাসী শিপনের নিকট জানতে চাইলে গরু বিক্রি টাকা নিয়ে পা্লিয়ে গেছে বলে মিথ্যা বলে কথা প্রচার করে বাঁচতে চেয়েছিলো কিন্তু মিথ্যা বলেও বাঁচতে পারলো না খুনি স্বামী।
খুনের ঘটনাটি ঘটে ০৪ জুলাই দিবাগত রাত্রে পাইকান্দি,খানপুরা (কাজির হাট সিএন্ডবির) পাশের গ্রামে।
মৃত্য নেয়াজ মোল্লার মেয়ে,নিহত সাবিনার (১২) বছর পূর্বে বিয়ে দিয়েছিলেন, সুজানগর থানার হাটাখালি ইউনিয়ন এর মৃত্যু আকু শেখের ছেলে শিপন (৩৫) এর সাথে।
এই বিভৎশ্য খুনের ঘটনা মটিভিষণ করতে ০৬ জুলাই ২০২২ খ্রীঃ মঙ্গলবার সকাল ১১ (এগারো) ঘটিকার সময়। পাবনা জেলার আমিনপুর থানার রূপুপুর ইউনিয়ন এর পাইকান্দা গ্রামের নিজ স্ত্রী খুনের দ্বায়ে ঘাতক স্বামী শিপন ০৫ জুলাই আমিনপুর থানা পুলিশ কর্তৃক আটক হয়। প্রেসব্রিফিঙ্গে সুজানগর সার্কেল সহকারী পুলিশ সুপার রবিউল ইসলাম বলেন, এই খুনের ঘটনায় দুইটি জীবন শেষ ও তিনটি শিশু এতিমের মাধ্যমে ভবিষ্যৎ জীবন তচ্ছ- নচ্ছ হয়েগেলো।
বিভৎশ্য এই খুনের বিষয়ে বিস্তারিত প্রেস ব্রিফিংএ জানান জেলার,সহকারি পুলিশ সুপার, সুজানগর সার্কেল অফিসার রবিউল ইসলাম। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, আমিনপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ রওশন আলী।
আটককৃত আসামির বর্তমান অবস্থা জানতে চাইলে, এ বিষয়ে ওসি রওশন আলী বলেন,নিহত সাবিনার পরিবারের পক্ষ থেকে হত্যা মামলা করা হয়েছে। মামলা রুজুর পর আসামি শিপনকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

About admin

Check Also

আমিনপুর থানায় শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত লাশ ঘর উদ্বোধন

এম এ আলিম রিপন ঃ বিভিন্ন ঘটনা বা দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তিদের লাশ ময়না তদন্তে প্রেরণের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.